কিভাবে নাবালকের নামে ব্যাংক হিসাব খুলবেন - Joy D. Biswas ✌✌™

Joy D. Biswas ✌✌™

Joy D. Biswas ✌✌™ Personal Webpage

Joy D. Biswas ✌✌™

Post Top Ad

Saturday, October 19, 2019

কিভাবে নাবালকের নামে ব্যাংক হিসাব খুলবেন

আইন অনুযায়ী যাদের বয়স ১৮ বছরের নীচে তাদেরকে নাবালক বলে। (Majority Act) সাবালকত্ত আইন ১৮৭৫ এর ৩ ধারা অনুসারে কোন ব্যক্তির বয়স ১৮ বছর পূর্ন না হওয়া পর্যন্ত নাবালক’। তবে কোন নাবালকের শরীর বা সম্পত্তির অভিবাবক যদি আদালত কর্তৃক নিযুক্ত করা হয় এ ক্ষেত্রে ২১ বছর পূর্ন না হওয়া পর্যন্ত নাবালক বলে গন্য হবে। নাবালকের নামে হিসাব খুলতে বিশেষ সতর্কতা প্রয়োজন কারণ আইন অনুযায়ী নাবালক চুক্তি করতে পারে না এবং নাবালকের চুক্তি বাতিলযোগ্য। তবে বিশেষ উপায়ে নাবালক ব্যাংক হিসাব খুলতে পারে।


নাবালক কে?
১৮ বৎসরের কম বয়সী বালক, বালিকা (১৯৭৫ সালের সাবালকত্ব আইন অনুযায়ী) নাবালক হিসাবে গণ্য হন। নাবালক নিজে কোন সম্পত্তি বিক্রয় বা কোন চুক্তি করতে পারেন না। নাবালকের পক্ষে তার পিতা বা মাতা কিংবা অন্য কোন অভিভাবক সম্পত্তি বিক্রয় বা কোন চুক্তি কিংবা তার নামে হিসাব খুলতে পারেন। পিতা স্বাভাবিক অভিভাবক, তাই পিতাকে নাবালকের গার্ডিয়ান নিযুক্ত হতে হয় না। পিতা ব্যতীত অন্যরা নাবালকের অভিভাবক হতে চাইলে প্রথমে আদালত থেকে গার্ডিয়ান নিযুক্ত হতে হবে।
নাবালক হিসাব
চুক্তি বিধি (Contract Act) অনুযায়ী কোনাে নাবালকের চুক্তি করার অধিকার নেই। তাই নাবালক নিজে হিসাব খুলতে পারে না। পিতা-মাতা (প্রাকৃতিক অভিভাবক) বা অন্য কোনাে ব্যক্তি কোর্ট কর্তৃক নাবালকের অভিভাবকত্ব গ্রহণ করার পর নাবালকের পক্ষে নাবালক হিসাব (Minor Account) খুলতে পারেন। নাবালক প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার পর হতে অভিভাবক ঐ হিসাব হতে কোনাে অর্থ উত্তোলন করতে পারবেন না। তাই ব্যাংক হিসাব ফরমের উপরে কিংবা বিশেষ জায়গায় নাবালকের জন্ম তারিখ ও প্রাপ্তবয়স্ক হওয়ার তারিখ লিখে রাখতে হয়। এই হিসাব খুলতে অন্যান্য হিসাবের মতাে প্রয়ােজনীয় কাগজপত্র, ছবি ও পরিচিতির প্রয়ােজন হয়।
নাবালকের ব্যাংক হিসাবের সতর্কতা
১) এই হিসাব খােলার নিয়মাবলি সতর্কতার সাথে প্রতিপালন করতে হবে, যাতে নিয়ম-কানুনের কোনােটাই বাদ না পড়ে।
২) অভিভাবক ও নাবালকের যৌথ নামে এই হিসাব খোলা যায় এবং অভিভাবক সকল লেনদেনের জন্য দায়ি হবেন।
৩) নাবালক হিসাবে কোনাে জমাতিরিক্ত ঋণ বা বিনিয়ােগ প্রদান করা যেন হয় সে ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে। কেননা, চুক্তি আইন মােতাবেক নাবালক উক্ত ঋণের জন্য আইনত দায়ী হবে না।
৪) নাবালক হিসাবে সাধারণত চেক বই ইস্যু করা ঠিক নয়।
৫) নাবালক হিসাবে কোনাে চেক বা বিনিময় বিল আদায় করা উচিত নয়।
৬) নাবালক সাবালক হওয়ার সাথে সাথে কিংবা তার মৃত্যু হলে উক্ত নাবালক হিসাবের লেনদেন বন্ধ হয়ে যাবে।
নাবালকের ন্যাচারাল গার্ডিয়ান
নাবালকের পিতা হবেন তার ন্যাচারাল গার্ডিয়ান। তিনি বেঁচে না থাকলে গার্ডিয়ান হবেন মা। উভয়েই মৃত হলে আদালত কর্তৃক নাবালকের অভিভাবকত্ব নির্ধারণ করতে হবে। অর্থাৎ-
১. বালক ও অবিবাহিত বালিকার বেলায় পিতা ন্যাচারাল গার্ডিয়ান হবেন, তার অনুপস্থিতিতে গার্ডিয়ান হবেন মা।
২. নাবালিকা বিবাহিতা হলে মেয়ের গার্ডিয়ান হবেন মা।
৩. পিতা-মাতার কেউ জীবিত না থাকলে আদালত কর্তৃক নির্ধারিত অন্য কোন ব্যক্তি নাবালকের গার্ডিয়ান হবেন।
সুত্রঃ সংগৃহীত  



If You Have Any Question Or Comment Please Write A Comment, I Will Answer It As Soon As Possible....Thank You....

যদি আপনার কোনও প্রশ্ন বা মন্তব্য থাকে তবে মন্তব্য লিখুন, আমি যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এর উত্তর দেবো.......... আপনাকে ধন্যবাদ ।।

No comments:

Post a Comment

Post Bottom Ad